গাজীপুরে স্মারকলিপি প্রদান ডেসটিনিতে প্রশাসক নিয়োগ বন্ধের দাবি ডিস্ট্রিবিউটরদের

গাজীপুরে স্মারকলিপি প্রদান
ডেসটিনিতে প্রশাসক নিয়োগ বন্ধের দাবি ডিস্ট্রিবিউটরদের

ডেসটিনিতে প্রশাসক নিয়োগ বন্ধের দাবিতে গতকাল গাজীপুরে ডিস্ট্রিবিউটর ফোরাম বিক্ষোভ (নিচে) করে স্থানীয় এমপি আ ক ম মোজাম্মেল হকের কাছে স্মারকলিপি দেয় -ডেসটিনি

ডেসটিনি রিপোর্ট
ডেসটিনিতে প্রশাসক নিয়োগ বন্ধের দাবি জানিয়েছে ‘ডেসটিনি ডিস্ট্রিবিউটর ফোরাম’। ডেসটিনিতে পরিচালক নিয়োগে প্রয়োজনে ৪৫ লাখ ডিস্ট্রিবিউটরের মধ্যে জরিপ চালানোর আহ্বান জানান ফোরাম নেতারা।
একই সঙ্গে মোহাম্মদ রফিকুল আমীনসহ সব পরিচালকের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার, তাদের শর্তহীন মুক্তি এবং প্রতিষ্ঠানের সব ব্যাংক হিসাব খুলে দেওয়ারও দাবি জানান তারা। ফোরাম নেতারা বলেন, কাজ করে এই প্রতিষ্ঠানে কোনো ক্রেতা-পরিবেশক ক্ষতিগ্রস্ত হননি।
গতকাল শনিবার ডেসটিনি ডিস্ট্রিবিউটর ফোরাম গাজীপুর শাখা ভূমি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবং গাজীপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য আ ক ম মোজাম্মেল হককে দেওয়া এক স্মারকলিপিতে এসব দাবি জানায়। ফোরামের গাজীপুর শাখার আহ্বায়ক রায়হান নোবেল এবং সদস্য সচিব শাখাওয়াত হোসেন রনির নেতৃত্বে সকাল সাড়ে ৯টায় গাজীপুরে সংসদ সদস্যের নিজ বাসভবনে গিয়ে এ স্মারকলিপি প্রদান করেন।
স্মারকলিপিতে বলা হয়, ডেসটিনি ১২ বছর ধরে যে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে তা এমএলএম নামে পরিচিত। এর পক্ষে-বিপক্ষে নানা যুক্তিতর্ক থাকলেও বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই ব্যবসা বিদ্যমান রয়েছে। বহু দেশে এ ব্যবসার আইনি কাঠামোও রয়েছে। ডেসটিনি কর্তৃপক্ষ শুরু থেকেই আইন প্রণয়নের আহ্বান জানিয়ে আসছে। নীতিমালা তৈরির উদ্যোগে তারা প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান।
ডেসটিনি গ্রুপের বিরুদ্ধে উদ্দেশ্যমূলক ষড়যন্ত্র চলছে উল্লেখ করে স্মারকলিপিতে বলা হয়, গণমাধ্যমের একটি অংশ হীন উদ্দেশ্যে ৪৫ লাখ লোককে বেকার করে দেশে অস্থিতিশীল অবস্থা তৈরি করে সরকারকে অসুবিধায় ফেলতে চায়। এর অংশ হিসেবে ৭ মাস ধরে লাগাতার মিথ্যাচার করে যাচ্ছে তারা। এতে দুর্নীতি দমন কমিশন, বাংলাদেশ ব্যাংক, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড ভুল বুঝে ডেসটিনির পরিচালনা পর্ষদসহ জ্যেষ্ঠ ব্যবস্থাপকদের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করে। কিন্তু ডেসটিনির কোনো ক্রেতা-পরিবেশক তাদের পরিচালকদের বিরুদ্ধে কোথাও কোনো অভিযোগ করেননি।
ডেসটিনিতে কাজ করে গাজীপুরের প্রায় এক লাখ লোক কর্মসংস্থান সৃষ্টি করেছে মন্তব্য করে তারা বলেন, গত সাত মাস প্রতিষ্ঠানটির ব্যাংক অ্যাকাউন্ট বন্ধ থাকায় কোনো প্রকার বেতনভাতা, কমিশন কিছুই না পেয়ে এ বিপুলসংখ্যক লোক মানবেতর জীবনযাপন করছেন। তারা প্রধানমন্ত্রীকে এ বিষয়ে অবহিত করার জন্য সংসদ সদস্যকে অনুরোধ জানান।
ডিস্ট্রিবিউটররা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকায় তদন্ত, অধিকতর তদন্ত এবং উপর্যুপরি তদন্তকে স্বাগত জানিয়েছেন। কিন্তু এখন যে অবস্থা দাঁড়িয়েছে তাতে চক্রান্তকারী মহলের একমাত্র লক্ষ্য প্রতিষ্ঠানটিকে ধ্বংস করা_ বলেন ডিস্ট্রিবিউটররা।
ডিস্ট্রিবিউটররা বলেন, ডেসটিনিতে ভালো ছিলাম, থাকব। কোনো প্রকার পরিবর্তন, পরিবর্ধন এবং প্রতিষ্ঠানটির পরিচালকদের অযথা হয়রানি না করার জন্য স্মারকলিপিতে অনুরোধ করা হয়।
ডিস্ট্রিবিউটররা ডেসটিনিতে কোনো প্রশাসক নিয়োগ চান না উল্লেখ করে ফোরামের পক্ষ থেকে বলা হয়, ডেসটিনিতে পরিচালক নিয়োগে প্রয়োজনে ৪৫ লাখ ডিস্ট্রিবিউটরের মধ্যে জরিপ পরিচালনা করা যেতে পারে। তারা ডেসটিনি গ্রুপের বিরুদ্ধে সব ধরনের ষড়যন্ত্র বন্ধের আহ্বান জানান।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s